আজ ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

লালমনিরহাটে পূর্ব শত্রুতার  বলি রোপন করা ধান গাছের চারা

কাওছার মাহামুদ, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের সরলখাঁয় গ্রামে পূর্ব শক্রুতার জের ধরে ক্ষেতের ধান গাছের চারা কেটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ বিষয় ১১ জনকে আসমী করে আদিতমারী থানায় অভিযোগ দিয়েছে ক্ষতিগ্রস্থ্য কৃষক।

অভিযোগ ও গ্রামবাসীরা জানান, সারপুকুর ইউনিয়নে সামসুল হাকের সাথে একই গ্রামের আসাদুজ্জামান মাস্টারের জমি নিয়ে বিরেরাধ চলে আসচ্ছে । এনিয়ে এক পর্যাায়ে সামসুল হক তার জমিতে আমন ধান চারা রোপন করে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ আসাদুজ্জামান মাস্টার লোকজন সুমসুল হক এর রোপন করা ৫৫ শতক জমির  ধানের চারা লোকজন নিয়ে কেটে ( তুলে) নিয়ে যায়। শক্রুতার বলি ধান চারা গাছ কেটে নিয়ে যাওয়া ক্ষুদ্ধ গ্রামবাসীও। তবে প্রতিপক্ষ আসাদুজ্জামান এর কাউকে পাওয়া যায়নি ঘটনাস্থলে।

জানাগেছে, সামসুল হকের ৫৫ শতক জমি অবৈধ ভাবে দাবী করে আসাদুজ্জামান মাস্টার দখল করার চেষ্টা চালায়। অবৈধ দখলকারীরা সামদুল হকের নিকট ২ লাখ টাকা চাদা দাবী করে। চাদা দিতে আশ্বীকার করলে গত ২২ আগষ্ট বিকালে আমার কবলাকৃত ভোক দখলীয় ৫৫ শতক জমিতে আসামীরা লাঠি শোটা, অস্ত্র নিয়ে ওই জমির ধানের চারা তুলে নিয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্থ্য ককৃষক সামসুল হক বাদী হয়ে আদিতমারী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

এ মামলায় আসামী হয়েছে সারপুকুরের সরলখার আজহারের পুত্র আসাদুজ্জামান মাস্টার,রবিউল ইসলাম, আজগার আলীর পুত্র আবু সাঈদ, হোসেন আলীর পুত্র মফিজুল ইসলাম,হাফিজুল ইসলাম,হামিদুল ইসলাম, হামিদেও পুত্র মোঃ আশরাফুল ইসলাম,রশিদুল ইসলাম, আব্দার আলীর পুত্র সোলেমান আলী তার পুত্র উজ্জল মিয়া, আব্দুস সাত্তারের পুত্র রফিকুল ইসলাম। আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা সাইফুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় মামলা অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

Comments are closed.

     এই ধরনের আরো সংবাদ